যে ভুলে নষ্ট হতে পারে দাম্পত্য সম্পর্ক

সুন্দর দাম্পত্য সম্পর্ক কে না চায়? বিবাহিত জীবনে কখনোই এমন কোন ভুল করা উচিৎ নয়; যে কারণে দাম্পত্য সম্পর্ক নষ্ট হতে পারে। কখনো মনে হতে পারে সেগুলো খুব সাধারণ ভুল; কিন্তু সাধারণ ভুলই অনেক সময়ই বড় ঘটনার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাই সব সময় ওইসব ভুল এরিয়ে চলার চেষ্টা করতে হবে। মনোবিজ্ঞানীরা দাম্পত্য সম্পর্ক সুন্দর রাখার জন্য কিছু পরামর্শ দিয়েছেন। এগুলো মেনে চললে কলহ এড়ানো সম্ভব হতে পারে।

অপমানজনক কথা বলবেন না

বিয়ের আগে কোন বিষয় নিয়ে পছন্দের মানুষের সাথে তর্ক না করলেও বিয়ের পর বিষয়টা একটু অন্যরকম হয়ে যায়। স্বামী-স্ত্রী বলে কথা! প্রেম-ভালোবাসার পাশাপাশি ঝগড়াও কিন্তু বিয়ের সাথে জড়িয়ে থাকে। তবে ঝগড়া করা মানেই সঙ্গীকে অপমান করা নয়। মতের মিল নাও হতে পারে। তাই বলে এমন কিছু বলবেন না; যাতে আপনার জীবনসঙ্গী অপমানিত হন। পরে হয়তো ক্ষমা চেয়ে নিতে পারবেন; কিন্তু অপমানজনক কথা ফিরিয়ে নিতে পারবেন না। তাই সবসময় কিছু বলার আগে ভেবে বলুন। তা না হলে এ ধরনের ভুলের কারণে নষ্ট হতে পারে সুন্দর দাম্পত্য সম্পর্ক।

আহ্লাদ বন্ধ নয়

জীবনসঙ্গীর সাথে সম্পর্ক রাখুন আহ্লাদী। বিয়ে মানেই আহ্লাদ বন্ধ হয়ে যাওয়া নয়। যদি সেটা মনে করেন তবে দেখবেন আপনার প্রতি তার প্রেম ধীরে ধীরে অদৃশ্য হতে শুরু করবে। বেশিরভাগ নারী মনে করেন,প্রেম থেকে বিয়ে হয়ে গেলে আর আহ্লাদ মানায় না। এটি ভুল ধারণা। জীবনসঙ্গীকে একটি আহ্লাদী মেসেজ পাঠিয়ে দিন এখনই। কিংবা কাজ শেষে বাসায় ফেরার পরও আহ্লাদ করতে পারেন। এতে চাঙ্গা থাকবে দাম্পত্য সম্পর্ক।

অর্থনৈতিক দিকটাও ভাগাভাগি দরকার

বিয়ের পর দু’জনে মিলে শুরু হয় নতুন জীবন। নতুন এই জীবনে সব দায়িত্ব দু’জনকেই নিতে হয়। অনেকে বিয়ের পর সংসারের অর্থনৈতিক দিকটা নিজের আয়ত্বে রাখতে চান। এ ধরনের মানসিকতা ঠিক নয়। কেউ এমন কাজ করলে তা ভুল। কারণ সংসারের সব কিছুতেই দু’জনের সমান অধিকার। তাই সবকিছু ভাগাভাগি করে নিতে হয়।দাম্পত্য জীবন সুন্দর রাখতে অর্থনৈতিক বিষয়েও খোলামেলা আলোচনা দরকার ।

জীবনসঙ্গীর পরিবারকে দূরে ঠেলে দেয়া নয়

দাম্পত্য জীবন সুন্দর রাখতে স্বামী বা স্ত্রীর পরিবারকে কখনো অপছন্দ করতে নেই। মনে রাখতে হবে, আপনি যেমন নিজের পরিবারকে পছন্দ করেন আপনার সঙ্গীও তেমনই তার পরিবারকে পছন্দ করে। স্বামী বা স্ত্রীর পরিবারকে অপছন্দ করলে আপনি নিজের অজান্তেই সুন্দর দাম্পত্য সম্পর্ক নষ্ট করছেন। তাই নিজের পরিবারের পাশাপাশি জীবনসঙ্গীর পরিবারের সাথে সুসম্পর্ক রাখুন। তাদের সাথে ভালো ব্যবহার করুন। শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা দিন ওই পরিবারের সবাইকে। দেখবেন জীবনসঙ্গীও আপনার পরিবারকে আপন করে নিবেন। ভালো থাকবে দাম্পত্য সম্পর্ক।

বন্ধুদের সাথে সময় কাটাতে দিন

নতুন বিয়ে হলে সবাই সঙ্গীর সাথে একটু বেশি সময় কাটাতে চান। কিন্তু তাই বলে বন্ধুদের সাথে সময় কাটাতে চাইলে রাগ করা উচিৎ নয়। স্বামী-স্ত্রী একসাথে সময় কাটানো যেমন জরুরি, তেমনি বন্ধুদের সাথে সময় কাটানও জরুরি। তাই আপনার স্বামী বা স্ত্রী বন্ধুদের সাথে সময় কাটাতে বাইরে যেতে চাইলে তাতে বাধা দেয়া উচিৎ নয়। বাধা দেয়া কিন্তু একটি ভুল। এতে দাম্পত্য সম্পর্ক নষ্ট হয়। ওই সময়টা বরং নিজের মতো করে কাটিয়ে নিন। চাইলে ওই সময় আপনিও বন্ধুদের সাথে দেখা করে আসতে পারেন। অথবা এক সাথে বেরুতে পারেন বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিতে। সূত্র- আমেরিকানকি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *